জনপ্রিয় অভিনেতা আনিস আর নেই

কমেডিয়ান অভিনেতা আনিসুর রহমান আনিস মারা গেছেন। গতকাল রাত সাড়ে ১১ টায় টিকাটুলীর নিজ বাসায় ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

জানা গেছে, পরিবার সকালে টিকাটুলী জামে মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে তার আদি নিবাস ফেনীর ছাগলনাইয়াতে নিয়ে যাবার কথা ভাবছেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার তার মেয়েজামাই শিমুল।

কিন্তু এর আগে এফডিসি প্রাঙ্গনে এই বিশিষ্ট অভিনেতার একটা জানাজা হবে কি না বা শেষ বারের মতো এফডিসিতে আনা হবে কিনা তা জানা যায়নি।

এদিকে, মঞ্চ, টিভি কিংবা চলচ্চিত্র– অভিনয়ের সব স্তরেই বিচরণ ছিলো তার। বলা যায় সব মাধ্যমেই সফল অভিনেতা ছিলেন আনিস। কমেডিয়ান হিসেবে ষাট থেকে নব্বইয়ের দশক পর্যন্ত জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিলেন এ কমেডিয়ান অভিনেতা।

টেলিভিশনের বহু নাটক ও ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে অভিনয় করে এই আনিস যে একজন কিংবদন্তি তুল্য তারকার মর্যাদা পেয়েছেন। তাকে বলা হত ‘হাসির রাজা’।

১৯৬০ সালে বিষকন্যা ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তিনি অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্রে আত্মপ্রকাশ করেন। কিন্তু ছবিটি মুক্তি পায়নি। ১৯৬৩ সালে মুক্তি পায় আনিস অভিনীত প্রথম ছবি জিল্লুর রহমান পরিচালিত ‘এইতো জীবন’। তারপর থেকে তিনি অভিনয় করেই গেছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে তিনি অভিনয় করেছেন। নবাব সিরাজদ্দৌলা নাটকে গোলাম হোসেন চরিত্রে অভিনয় করে তিনি মঞ্চে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেছিলেন।

তার বাবা মরহুম আমিনুর রহমান চা বাগানের ব্যবসার সঙ্গে জড়িত ছিলেন। গ্রামের বাড়ি ফেনী জেলার ছাগলনাইয়ার দক্ষিণ বল্লবপুরে। ১৯৬৫ সালে খালাতো বোন কুলসুম আরা বেগমকে ভালোবেসে বিয়ে করেন আনিস। উনপঞ্চাশ বছর একসঙ্গে সংসার করেছেন তারা। দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনে এতটুকু ছেদ পড়েনি তাদের ভালোবাসায়। আনিসের বড় মেয়ে ফারহা দীবা থাকেন আমেরিকাতে। তার স্বামী তারেক হোসেন সেদেশে ব্যবসা করেন। ছোট মেয়ে ফাতেমা রহমান রিমি কুমিল্লায় আছেন। তার স্বামী আলাউদ্দীন সেখানে ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে কর্মরত। রিমি ইংরেজিতে মাস্টার্স করেছেন। আগে ফরিদপুরের একটি কলেজে অধ্যাপনা করতেন। কিন্তু সন্তান জন্মের পর চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন।

আরও খবর