নিরবকে নিয়ে প্রত্যাশা বেড়েছে সিনেমা প্রেমীদের

নিরব হোসেন, শুরুটা মডেলিং দিয়ে হলেও এখন তিনি বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় চিত্রনায়ক। বেশ কিছু সিনেমায় প্রধান নায়কের চরিত্রে অভিনয় করলে ও তেমন আলোর মুখ দেখেননি তিনি। গেল বছর রয়েল খান পরিচালিত ‘গেইম রিটার্নস’ ছবি দিয়ে বেশ প্রসংশা পেয়েছেন এই নায়ক।
সম্প্রতি ৫ই জুলাই সাইফ চন্দন পরিচালিত ও নিরব অভিনীত ‘আব্বাস’ ছবিটি মুক্তি পায়। মুক্তির আগেই ছবিটির ফাস্ট লুক, পোস্টার এবং ট্রেইলার দেখে বেশ আলোচনা ও সমালোচনা শুরু হয়। নায়ক সাকিব খান, সিয়াম আহমেদ,বুবলি,বেলাল খান সহ অনেকেই এই ছবির জন্যে শুভ কামনা জানিয়েছেন।
অনলাইন মিডিয়া, প্রিন্ট মিডিয়া, ফেইসবুক সহ সব খানেই আলোচিত হয় ‘আব্বাস’।  ৫ই জুলাই সারা দেশের ৩৭ টি সিনেমা হলে মুক্তি পায় “আব্বাস” সিনেমাটি। প্রথম দিনই সিনেমা হলে উপচে পড়া ভীর শুরু হয় ছবিটি দেখতে। চারদিকে শুরু হয় ‘আব্বাস’ বন্দনা ।

আব্বাসের সাফল্যে পরবর্তীতে আরো বেশ কিছু সিনেমা হল মালিকরা ‘আব্বাস’ সিনেমা প্রদর্শনে আগ্রহী হয়,ফলে আরো বেশ কিছু সিনেমা হলে মুক্তি পায় ‘আব্বাস’।
দীর্ঘদিন পর একটি সুপার হিট সিনেমা উপহার দেন চিত্রনায়ক নিরব।  এখন নিরবকে নিয়ে প্রত্যাশা বেড়েছে সিনেমা প্রেমীদের, তারা চায় নিরবকে সঠিক ভাবে কাজে লাগালে তিনি আমাদের ভাল ভাল ছবি উপহার দিতে পারবেন।   আব্বাস ছবিতে বেশ উৎফুল্ল ও কোন প্রকার জড়তা ছাড়ায় বেশ ভাল অভিনয় করেছে চিত্রনায়ক নিরব, যার ফলে সব মহল থেকে তিনি শুভেচছা ও অভিনন্দন পাচ্ছেন।
আব্বাস চলচ্চিত্রের সাফলে উচ্ছ্বাসিত চিত্রনায়ক নিরবও । তিনি বলেন, ‘আব্বাস’ ছবিটির সাফল্যের মূল দাবিদার দর্শকরা। তাদের কারণেই ‘আব্বাস’ সফলতা পেয়েছে। এই ছবিতে আমি প্রচুর শ্রম দিয়েছি এবং ছবিটির জন্য  ভালোবাসা ও পেয়েছি এখনো পাচ্ছি। আমি মনে করি, ছবিটির সাফল্য আসলে ঢাকাই সিনেমার সাফল্য। আশা করছি, সিনেমার দুঃসময়ে ভালো গল্প ও যথাযথ নির্মাণের মাধ্যমে সিমেমা উপহার দিলে চলচ্চিত্রের এ দুঃসময় কেটে যাবে।
‘আব্বাস’ চলচ্চিত্রের পরিচালক সাইফ চন্দন। এতে প্রধান দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন নিরব ও সোহানা সাবা।অ্যাকশন থ্রিলার ধাঁচের ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন,আলেকজান্ডার বো, সূচনা আজাদ, জয়রাজ, ডন, শিমুল খান, স্বাধীন ও ইলোরা গহর প্রমুখ। এটি প্রযোজনা করেছে ঢাকা ফিল্মস অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট.
আরও খবর