বেপরোয়া চলবে ৫২ টি অভিজাত সিনেমা হলে

কয়েক দফা মুক্তি পেছানোর পর আসন্ন এই ঈদে মুক্তি পাচ্ছে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত চলচ্চিত্র ‘বেপরোয়া’। সারাদেশে ৫২টি সিনেমা হলে ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে। ছবিটি পরিচালনা করেছেন ওপার বাংলার নির্মাতা রাজা চন্দ। এতে প্রথমবার জুটি বেঁধে অভিনয় করেছেন চিত্রনায়ক রোশান ও চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি।

সিনেমাটি মুক্তি প্রসঙ্গে জাজ মাল্টিমিডিয়ার সিইও আলিমুল্লাহ খোকন বলেন, আমরা সব ধরণের প্রস্তুতি শেষ করেছি। এরই মধ্যে সারা দেশের সিনেমা হলগুলোতে পোস্টার-ব্যানার পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলা যদি ছবিটি ৪০ -৪৫ সিনেমা হল পায় তাহলে মুক্তি দেব না। তবে হল মালিকদের আগ্রহের কারণে ছবিটি ৫২ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিতে বাধ্য হয়েছি।

রোশান-ববি ছাড়াও এতে অভিনয় করেছেন কাজী হায়াৎ, শহীদুল আলম সাচ্চু, তারিক আনাম খান, নানা শাহ, রেবেকা, কমল পাটকের প্রমুখ।

ঈদের দিন থেকে যেসব সিনেমা হলে বেপরোয়া চলবে সেগুলো হলোঃ-

১। স্টার সিনেপ্লেক্স- ঢাকা
২। ব্লকবাস্টার সিনেমাস- ঢাকা
৩। অভিসার – ঢাকা
৪। শাহিন- ঢাকা
৫। মতিমহল- ডেমরা
৬। বর্ষা- জয়দেবপুর
৭। গুলশান- নারায়ণগঞ্জ
৮। লাভলী- কাঁচপুর,নারায়নগঞ্জ
৯। ছায়াবানী- ময়মনসিংহ
১০। সিলভার স্ক্রীন- চট্টগ্রাম
১১। সঙ্গীতা- খুলনা
১২। মমো ইন- বগুড়া
১৩। চিত্রালী- খুলনা
১৪। মমতাজ- সিরাজগঞ্জ
১৫। সাগরিকা সিনেমা – চালা
১৬। মালঞ্চ- টাঙ্গাইল
১৭। অবসর- ভোলা
১৮। পূর্বাশা- শান্তাহার
১৯। তিতাস- পটুয়াখালী
২০। রুমা- মুক্তাগাছা
২১। রুমা- শরিয়তপুর
২২। শিকতা- ধুনট
২৩। কল্লোল- মধুপুর
২৪। রাজিয়া- সিনেমা
২৫। আনন্দ- কুলিয়ারচর
২৬। অন্তরা- মেলান্দহ
২৭। মনিকা- শায়েস্তাগঞ্জ
২৮। মৌসুমী- পাকুন্দিয়া
২৯। তুলি- নাভারন
৩০। রাধানাথ- শ্রীমঙ্গল
৩১। রিয়া- জারিয়া
৩২। আলমডাঙ্গা- টকিজ
৩৩। অনামিকা- পিরোজপুর
৩৪। আনন্দ- তানোর
৩৫। আয়না- আক্কেলপুর
৩৬। বাবু টকিজ- কিশোরগঞ্জ
৩৭। বৈশাখী- নড়িয়া
৩৮। ছন্দা- কালিগঞ্জ
৩৯। দিনান্ত- কেশরহাট নওগাঁ
৪০। জনতা- জলঢাকা
৪১। লাইটহাউজ- পারুলিয়া
৪২। মমতাজ মহল- নীলফামারী
৪৩। নসিব- সাপাহার
৪৪। রাজু- ইশ্বরদী
৪৫। রংধনু- নাজিপুর
৪৬। রুপালী- পাঁচবিবি
৪৭। শাহিন- বল্লাবাজার
৪৮। সখি- হোসেনপুর
৪৯। সোনালী- ঘোড়াঘাট
৫০। মৌসুমী- ইসলামপুর
৫১। উল্লাস- বীরগঞ্জ
৫২। সত্যবতী -শেরপুর

আরও খবর